ধর্মপাশা ও মধ্যনগরে আনন্দ মিছিল

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
ধর্মপাশা-জামালগঞ্জ (ভায়া জয়শ্রী-সুখাইড়-সাচনা বাজার) পর্যন্ত ‘শেখ হাসিনা উড়াল সড়ক’ একনেকে অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান ও স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনকে অভিনন্দন জানিয়ে ধর্মপাশায় আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার বিকেল চারটায় উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে আনন্দ মিছিলটি বের হয়ে উপজেলা সদরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। আনন্দ মিছিল শেষে খাদ্যগুদাম সংলগ্ন মোড়ে বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাড. আব্দুল হাই তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস। পরে উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা এলজিইডির পক্ষ থেকেও পৃথক আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। এ সময় স্থানীয়দের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।
অপরদিকে ওইদিন দুপুর আড়াইটার দিকে ‘শেখ হাসিনা উড়াল সড়ক’সহ মধ্যনগর উপজেলার মধ্যনগর-মহিষখলা সড়ক ও মধ্যনগর-টুকের বাজার সড়ক একনেকে অনুমোদন হওয়ায় পৃথকভাবে আনন্দ মিছিল করেছে মধ্যনগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে স্থানীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে মিছিল শেষে বক্তব্য দেন মধ্যনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মোবারক হোসেন তালুকদার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল ইসলাম খান রনি, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি পারভেজ আহমেদ প্রমুখ। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন হলে জেলা শহরের সাথে সার্বিক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ কৃষি উৎপাদন এবং উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারকরণ সহজ হবে।
সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, ‘দীর্ঘ বছরের লালিত স্বপ্ন উড়াল সড়ক অনুমোদন দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে হাওরবাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’