ধর্ম নিয়ে অপ-রাজনীতি করার সুযোগ নেই- পরিকল্পনামন্ত্রী

সু.খবর রিপোর্ট
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারের শাসনামলে সকল ধর্মের মানুষের ধর্মীয় অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। ধর্ম নিয়ে অপরাজনীতি করার সুযোগ সরকার কাউকে দেয়নি।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের হাতে যখনি রাষ্ট্র ক্ষমতা এসেছে তখনি দেশের মানুষ ভালো কিছু পেয়েছে। আওয়ামী লীগ পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে বাঙালিকে মুক্ত করে স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। আওয়ামী লীগ গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের মুখে হাসি ফুটাতে কাজ করে।
শুক্রবার বিকেলে জগন্নাথপুর পৌরসভার হবিবনগর এলাকায় নবনির্মিত জগন্নাথপুর ব্রিটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকে’র রিসোর্স সেন্টারের চাবি হস্তান্তরকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
জগন্নাথপুর ব্রিটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকে’র আয়োজনে ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি নুরুল হক লালা মিয়ার সভাপতিত্বে ও ট্রাস্টি মহিব চৌধুরী ও মুজিবুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আকমল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, জগন্নাথপুর ব্রিটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্টের ট্রাস্টি রফিক মিয়া, আশিক চৌধুরী, সাজ্জাদুর রহমান, পাবেল কাদের চৌধুরী, আনহার মিয়া, ছুবা মিয়া, এনামুল ইসলাম, আবুল হোসাইন, মখলুছ মিয়া চেয়ারম্যান, আফজাল চেয়ারম্যান, বকুল আব্দুস সবুর, আব্দুল হাই আজাদ প্রমুখ।
মন্ত্রী আরও বলেন, গত ১২ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে অনেক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। যাঁরা সরকারের অনেক বিষয়ে একমত না তাঁরাও স্বীকার করেন শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশাল পরিবর্তন করেছেন। বাংলাদেশের সাফল্যর চিত্র তুলে ধরে পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, করোনা মহামারীতে বাংলাদেশ ইংল্যান্ডের চেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে। ইংল্যান্ডের তুলনায় বাংলাদেশে টাকাপয়সা কম, ডাক্তার কম, নার্স কম থাকা সত্ত্বেও আমরা করোনা মোকাবেলায় সক্ষম হয়েছি।
উল্লেখ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয় ভবনটি নির্মাণে।


রূপপুর প্রকল্প দেশকে প্রযুক্তিগতভাবে অনেক দূর এগিয়ে নেবে
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাংলাদেশকে প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে। যা অনেকে হয়তো কল্পনাও করতে পারছেন না।’
তিনি শনিবার দুপুরে সিলেটে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের এখন চমৎকার সময় পার করছে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতো বলিষ্ঠ নেতৃত্ব থাকায় বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ সুনাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। এক সময় যারা দেশকে তলাবিহীন ঝুঁড়ি হিসেবে বিশ্বে প্রচার করেছিল, আজ তারা বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা-উন্নয়নের প্রশংসা করছে। বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশকে অনুসরণ করছে। তাই, এ নিয়ে গর্ব করতে পারি।’
নির্বাচন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘কেউ ভোট দেবে না তাকে জোর করে ভোট প্রয়োগের আইন নেই বাংলাদেশে। পৃথিবীর অনেক দেশে আইন আছে ভোট না দিলে জেল-জরিমানা হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘কেউ নির্বাচনে অংশ না নিতে পারে। তবে, এর বিপরীতে জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগে কেউ বাধা দিলে এটা অন্যায় কাজ। আমরা এ অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াব।’
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, সিলেট ইউনিটের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান।