নকল মুক্ত পরিবেশে এইচএসসি পরীক্ষা সম্পন্নে ৭টি নির্দেশনা

স্টাফ রিপোর্টার
এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা সুষ্ঠু, সুন্দর, গুজব ও সম্পূর্ণ নকল মুক্ত পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য ৭টি নির্দেশনা দিয়েছে সিলেটে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড।
বৃহস্পতিবার পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর অরুন চন্দ্র পাল স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।
নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে— পরীক্ষা কেন্দ্রের ২০০ গজের মধ্যে ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকবে। তাই পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট নয় এমন ব্যক্তির পরীক্ষা কেন্দ্রের আশেপাশে অযথা ঘোরাফেরা করা সম্পূর্ণরূপে নিষেধ।
পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পূর্বে পরীক্ষার্থীদেরকে অবশ্যই পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে হবে।
প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ানো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন ১৯৮০, তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি আইন, ২০০৬ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
৩ নভেম্বর ২০২২ থেকে ১৪ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখ পর্যন্ত সব ধরণের কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।
পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীগণ পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের সময় কোন ইলেকট্রনিক ডিভাইস বা মোবাইল, মোবাইল ফোনের সুবিধাসহ ঘড়ি, কলম এবং পরীক্ষা কেন্দ্রে ব্যবহারের অনুমতিবিহীন যে কোন ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস নিষিদ্ধ থাকবে; নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
প্রশ্নপত্র ফাঁস কিংবা পরীক্ষার্থীদের নিকট উত্তর সরবরাহে জড়িত ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও জেলা প্রশাসন কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।
শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা অন্য কোন মাধ্যমের গুজব থেকে বিরত থাকুন।
প্রসঙ্গত, আগামী ৬ নভেম্বর থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে।