নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার -পরিকল্পনা মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার
পৌর নাগরিকদের পানি সেবা পৌঁছে দিতে সুনামগঞ্জ পানি শোধনাগার ২ এর উদ্বোধন করা হয়েছে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ও সুনামগঞ্জ পৌরসভার বাস্তবায়নে ১৬ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয়ে পানি শোধনাগার নির্মাণ করা হয়েছে। এর ফলে পৌরসভার প্রায় ৭৫ শতাংশ নাগরিক বিশুদ্ধ পানি সুবিধা প্রাপ্তির আওতায় এসছেন।
মঙ্গলবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে পানি শোধনাগারের উদ্বোধন করেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান। পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, নতুন পানি শোধনাগারের মাধ্যমে প্রায় ৭৫ শতাংশ পৌর নাগরিক বিশুদ্ধ পানি সুবিধা পাবেন। পৌরসভার সকল নাগরিককে বিশুদ্ধ পানি সুবিধার আওতায় নিয়ে আসার লক্ষ্যে আরেকটি পানি শোধনাগার স্থাপন করা হবে। পৌর নাগরিক সহ সকলের সুযোগ সুবিধা নিশ্চিতের লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে, আমরা সকলে কাজ করছি।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত সুনামগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের জন্য বিশেষ দৃষ্টি দেয়ার জন্য পরিকল্পনা মন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এসময় তিনি সুনামগঞ্জ
পৌরসভার সার্বিক উন্নয়নে বিশেষ নজর রাখার জন্যও পরিকল্পনা মন্ত্রীকে অনুরোধ করেন।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মীর মোশারফ হোসেন, সুনামগঞ্জ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবুল কাশেম, সুনামগঞ্জ পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী কালিকৃষ্ণ পাল, উপ সহকারী প্রকৌশলী মো. হেলাল আবেদীন, দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের সহকারী সম্পাদক অ্যাড. মাহবুবুল হাছান শাহীন, পৌরসভার পানি শাখার তত্ত্বাবধায়ক বজলুল হক, কাউন্সিলর হোসেন আহমদ রাসেল, কাউন্সিলর আহমদ নূর সহ কাউন্সিলরবৃন্দ, পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।
নির্বাহী প্রকৌশলী মীর মোশারফ হোসেন জানান, পানি শোধনাগারটি ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে অপারেশন কার্যক্রমে যাবে। পৌরসভার তিন হাজার নাগরিক এর সুবিধা ভোগ করবেন। নতুন ও পুরাতন পানি শোধনাগার মিলিয়ে পৌরসভার প্রায় ৭৫ শতাংশ নাগরিক বিশুদ্ধ পানি সুবিধার আওতায় এসেছেন।
তিনি জানান, পৌরসভার সকল নাগরিকদের বিশুদ্ধ পানি সুবিধার আওতায় নিয়ে আসতে শহরে মল্লিকপুরে আরেকটি বিশুদ্ধ পানি শোধনাগার নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।