নোয়ারাই খেয়াঘাটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকে সুরমা নদীর উপর খেয়াঘাটের ইজারদার কর্তৃক নিয়োগকৃত সাব ইজারাদারের দৌরাত্ম্য ক্রমেই বেড়ে চলছে। অধিক ভাড়া আদায়, যাত্রী হয়রানি ও যাত্রীদের সাথে অশালিন আচরণের মতো ঘটনা ঘটে শহরের নোয়ারাই খেয়া ঘাটে। ইজারার শর্ত ভেঙে যাত্রীদের জিম্মি করে ক্ষেত্র বিশেষে ৩ থেকে ৫ গুণ বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠেছে নোয়ারাই খেয়াঘাট পরিচালনাকারী ও কর্তব্যরত মাঝিদের বিরুদ্ধে।
জানা যায়, বৃহত্তর সিলেটের অন্যতম খেয়াঘাট ছাতক শহরের পশ্চিম বাজার (নোয়ারাই) পাবলিক খেয়াঘাট। প্রতিদিন উত্তরাঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের নদী পারাপার হচ্ছেন এ ঘাট দিয়ে। সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের আওতাধীন এ খেয়াঘাট দিয়ে ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত যাত্রীরা পারাপার হয়ে থাকেন। এ খেয়া ঘাটটি ছাতক শহর ও উত্তরাঞ্চলের মানুষের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
ঘাট লিজের শর্তানুযায়ী খেয়া পারাপারের মূল্য তালিকা সম্বলিত বড় সাইনবোর্ড ঝুলানো, ঘাটের রক্ষণাবেক্ষণ ও ঘাট অন্য কারো কাছে সাব—লিজ দেয়া যাবে না। কিন্তু ইজারার এসব শর্তের একটিও মানছেন না ইজারাদার। শুরু থেকেই সাব—লিজ দিয়ে যাত্রীদের হয়রানি, স্বেচ্ছাচারিতাসহ ইচ্ছে মতো ভাড়া আদায় করছে তারা। খেয়াঘাটে ভাড়া নিয়ে কেউ প্রতিবাদ করলে তাদের অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করে টাকা দিতে বাধ্য করে সাব ইজারদারের দায়িত্বপ্রাপ্ত লোকজন। এ নিয়ে প্রায়ই ঘাটে যাত্রীদের অপদস্থ হওয়ার মত ঘটনা ঘটছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, নিয়মানুযায়ী নৌকায় যাত্রী প্রতি ৪ টাকা ভাড়া আদায়ের নিয়ম থাকলেও আদায় করা হচ্ছে ১০—২০ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া সন্ধ্যার পরে যাত্রীদের অনেকটা জিম্মি করে ইচ্ছেমতো ভাড়া আদায় করার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। নৌকায় ধারণক্ষমতার চেয়ে অতিরিক্ত যাত্রী বহন হচ্ছে নিয়মিত। মালামাল পারাপারেও অত্যধিক ভাড়া পরিশোধ করতে হয় যাত্রীদের।
আগামী ১ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বিদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। শহরের সুরমা নদীর উভয়পারে মোট ১২টি মন্ডপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে শারদীয় উৎসব। এসময় নদী পারাপারে চাপও থাকবে অধিক। দুর্গা পূজা উপলক্ষে যাত্রীদের কাছ থেকে অধিক ভাড়া আদায় করার পরিকল্পনা করছে ঘাট কর্তৃপক্ষ। এসময় খেয়া নৌকার ধারন ক্ষমতার বিষয়টি নিয়ন্ত্রিত না থাকলে দূুর্ঘটনা ঘটার আশংকা থাকবে।
এ ব্যাপারে ছাতক উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরের জামান চৌধুরীর জানান, জেলা পরিষদের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।