নোয়াগাঁওয়ে হামলার মামলায় যুবলীগ নেতা স্বাধীন গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জের শাল্লার নোয়াগাঁও গ্রামে হামলার ঘটনায় গ্রামবাসীর দায়ের করা মামলায় প্রধান আসামি যুবলীগ নেতা ও ইউপি সদস্য শহীদুল ইসলাম স্বাধীনকে আটক করেছে পিবিআই।
সিবিআইয়ের সিলেটের পুলিশ সুপার খালেদ আহমদ এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার গভীর রাতে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
পিবিআই জানিয়েছে, দিরাই উপজেলার সরমঙ্গল ইউনিয়ন যুবলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য ও মেম্বার স্বাধীন নোয়াগাঁয়ের হামলার ঘটনায় সক্রিয় ছিলেন। তার বাড়ি উপজেলার নাচনি গ্রামে।
উল্লেখ্য, ফেসবুকে উস্কানিমূলক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে গত বুধবার সকালে শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে হামলা চালিয়ে ৫টি মন্দির ও ৮৮টি বাড়িঘর ভাঙচুর, লুটপাট ও আসবাবপত্র তছনছ করে হেফাজতে ইসলামীর অনুসারীরা। খবর পেয়ে শাল্লা থানা পুলিশসহ ও দিরাই থেকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে শাল্লা থানা পুলিশের এসআই আব্দুল করিম বাদী হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকশ এবং হবিবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ মজুমদার বাদী হয়ে ৮০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। চেয়ারম্যানের মামলার প্রধান আসামি যুবলীগ নেতা ও ইউপি সদস্য শহীদুল ইসলাম স্বাধীন।
এ দিকে হামলার ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাত ১২টা থেকে শুক্রবার ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন গ্রাম থেকে ২২ জনকে আটক করে পুলিশ।
পুলিশের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আটক ২২ জনের মধ্যে যাচাই করে যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হবে।