নৌকার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

স্টাফ রিপোর্টার
সদর উপজেলার রঙ্গারচর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নৈগাং বাজারে নৌকার মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে ইউনিয়নের নৈগাং বাজারে মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন নৌকার সমর্থকেরা। তারা দুর্বৃত্তদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।
নৈগাং এলাকার বাসিন্দা একাধিক ব্যক্তি জানান, শনিবার খুব ভোরে দুর্বৃত্তরা নৌকার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে। খবর পেয়ে লোকজন বাজারে জমায়েত হতে শুরু করে। উপস্থিত লোকজন দেখতে পান বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য ছেঁড়া পোস্টার। এমনকি এক স্থানের পোস্টারে আগুনে জ্বলতেও দেখা যায়। একই সময়ে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী ফয়েজুর রহমানের পোস্টারও ছিঁড়েছে দৃর্বত্তরা।
এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে নৈগাং বাজারে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল বাজার এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন রঙ্গারচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল করিম, মামুন সিদ্দিকী ও লাঙলের সমর্থক মহসীন আহমদ প্রমুখ।
নৈগাং বাজারে নৌকা ও লাঙলের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তারা এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।
এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা মিসবর আলী, আব্দুর রশিদ, গোলাপ মিয়া, ইউনুস আলী, হেলাল মিয়া, আবুল কাশেম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে, নৈগাং বাজারে নৌকার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় রঙ্গারচর ও কুরবাননগর ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্র্নিং অফিসারের নিকট স্থানীয় সাত জনের নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. নুরে আলম সিদ্দিকী।
রঙ্গারচর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মজিদ বলেন, নৈগাং বাজারে আমার পোস্টার দুর্র্বৃত্তরা ছিঁড়ে ফেলেছে। এরা বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে চায়। এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাই।
রঙ্গারচর ও কুরবাননগর ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এনামুর রহীম বাবর বলেন, রঙ্গারচর ইউনিয়নের নৈগাং বাজারে নৌকার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার বিষয়ে আমার কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখবো।
সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সহিদুর রহমান বলেন, নৈগাং বাজারে নৌকার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় আমি এখনও অভিযোগ পাইনি। কেউ অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।