- সুনামগঞ্জের খবর » আঁধারচেরা আলোর ঝলক - https://sunamganjerkhobor.com -

পদ্মা সেতুতে বসল শেষ স্ল্যাব, পূর্ণ রূপ পেল সড়কপথ

সু.খবর ডেস্ক
কোটি কোটি মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতুর রোডওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। এর ফলে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার সেতুর সড়কপথ পূর্ণাঙ্গ রূপ পেল। এখন শুধু পিচ ঢালাইয়ের কাজ বাকি থাকল। সোমবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে সেতুর রোডওয়ের শেষ স্ল্যাব বসানো হয় বলে জানিয়েছেন পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের।
তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর কাজ আরও একধাপ এগিয়ে গেল। এ ছাড়া পদ্মা সেতুর মাঝখান দিয়ে গ্যাসলাইন বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। একইসঙ্গে শেষ হতে চলছে রেললাইনের কাজও। আগামী বছরের জুনের আগেই সম্পূর্ণ কাজ শেষ করা হবে।
পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, মাওয়া প্রান্তের ১২ ও ১৩ নম্বর খুঁটির মাঝখানে টু-এফ স্প্যানটিতে মাত্র ৬ মিটার এলাকায় রোড স্ল্যাব বসানোর কাজ বাকি ছিল। সেটি সোমবার সকালে সম্পন্ন হয়েছে।
তিনি বলেন, ২০১৮ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর জাজিরা প্রান্তের ৩৭ ও ৩৮তম খুঁটির মাঝের স্প্যানে রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো শুরু হয়েছিল। পদ্মা সেতুর সড়ক পথের ২৯১৭টি স্ল্যাবের মধ্যে সবগুলো এখন বসে গেছে। তবে যান চলতে বাকি থাকবে কার্পেটিং। ১৮ মিটার চওড়া স্প্যানের উপর তলায় ২২ মিটার প্রস্থের চার লেনের সড়ক পথ তৈরি শেষ হলেই যান চলাচলের উপযোগী হবে পদ্মা সেতু।
পদ্মা সেতুর প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, নির্ধারিত সময়ের একমাস আগেই স্ল্যাব বসানো সম্পন্ন হবে।
পদ্মা সেতুতে ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো সম্পন্ন হয়েছে চলতি বছরের ২০ জুন। ১ হাজার ৩২৮টি রেলওয়ে স্টেনজারের উপর বসেছে ১৭ ফুট প্রস্থের রেলওয়ে স্ল্যাব। ফলে এখন সেতুর নিচতলা দিয়ে পায়ে হেঁটেই মাওয়া থেকে পদ্মা পার হয়ে জাজিরা প্রান্তে যাওয়া যাচ্ছে।
প্রায় ১৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে পদ্মা সেতুতে গ্যাস পাইপলাইন স্থাপন করছে চীনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান চায়না পেট্রোলিয়াম পাইপ লাইন ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড।
এই প্রকল্পের পরিচালক সুন হুন্ডু সমকালকে জানান, প্রকল্পের মেয়াদ আগামী ডিসেম্বর। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই পাইপ লাইন স্থাপন সম্ভব।
সূত্র : সমকাল

  • [১]