পৌরসভার নাগরিক সংবর্ধনা, প্রেসক্লাবের সকৃতজ্ঞ ধন্যবাদ জ্ঞাপন

স্টাফ রিপোর্টার
জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের বদলিজনিত বিদায়ে হাওরবাসীর পক্ষে সকৃতজ্ঞ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়েছে। শনিবার শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের আয়োজনে এই সকৃতজ্ঞ ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে বক্তারা জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, বিশেষ করে হাওররক্ষা বাঁধ নির্মাণের সময় তিনি অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। বাঁধের ত্রুটির কথা শুনলে নিজেই সরজমিনে গিয়েছেন। সংকটাপন্ন বাঁধের দিকে বিশেষ নজর রেখেছেন। সে সময় রাত দিন তিনি বাঁধে ঘুরেছেন কৃষকদের ফসল রক্ষা করার জন্য। এছাড়াও শতাব্দীর ভয়াবহ বন্যার সময় অসহায় মানুষের সহায়তা করতে তিনি সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, কোস্ট গার্ড, প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারিসহ রাজনৈতিক সামাজিক বিভিন্ন সংগঠনকে সাথে নিয়ে বন্যার ক্ষয়ক্ষতি কমাতে কাজ করেছেন।


সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি পঙ্কজ দে’র সভাপতিত্বে ও দৈনিক প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক খলিল রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পরিমল কান্তি দে, বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর রজত কান্তি সোম, সাবেক সিভিল সার্জন ডা. সৈয়দ মোনাওয়ার আলী, প্রবীণ সমাজকর্মী গোলাম কিবরিয়া, বিটিভির সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট আইনুল ইসলাম বাবলু, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, সুনামগঞ্জ আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রুহুল তুহিন, কবি ও লেখক মুনমুন চৌধুরী, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি শামস শামীম, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি বিন্দু তালুকদার প্রমুখ।


বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, ফসলরক্ষা বাঁধ, স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার সময় আমি নিজের সবোচ্চর্ শক্তি দিয়ে কাজ করেছি। সুনামগঞ্জে দায়িত্ব পালনের সময় জেলার সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা, ভালোবাসা পেয়েছি। সেই ভালোবাসা নতুন জায়গায় কাজে শক্তি যোগাবে।
পরে সুনামগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগ জেলা শিল্পকলা একাডেমির হাসন রাজা মিলনায়তনে নাগরিক সংবর্ধনায় বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন। পৌর মেয়র নাদের বখ্ত এর সভাপতিত্বে এবং জেলা উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন

পৌর কাউন্সিলর সামিনা চৌধুরী মনি, সাংবাদিক খলিল রহমান ও পঙ্কজ দে, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বিমান রায়, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রুহুল তুহিন, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম, শিক্ষাবিদ যোগেশ্বর দাস, রাজনীতিবিদ রমেন্দ্র কুমার দে মিন্টু, জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি গৌরি ভট্টাচার্য, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাড. নজরুল ইসলাম ও অ্যাড. চান মিয়া, জেলা রেড ক্রিসেন্টের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মতিউর রহমান পীর, অধ্যক্ষ রজত কান্তি সোম মানস, শিক্ষাবিদ পরিমল কান্তি দে। এই আয়োজনে সহযোগিতা করেছে জেলা শিল্পকলা একাডেমি।