- সুনামগঞ্জের খবর » আঁধারচেরা আলোর ঝলক - https://sunamganjerkhobor.com -

প্রথম আলো একটি প্রেরণার নাম

স্টাফ রিপোর্টার
প্রথম আলো এমন একটি সংবাদপত্র যেটির ওপর আস্থা, ভরসা রাখা যায়। এ কারণে প্রথম আলোর কাছে মানুষের প্রত্যাশা বেশি। শুরু থেকে পত্রিকাটি যেমন বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করছে, তেমনি রয়েছে তাদের অসংখ্য ভালো উদ্যোগ, যেগুলো সমাজ ও দেশকে সামনে এগিয়ে নিচ্ছে। তরুণদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে। প্রথম আলো আসলে একটি প্রেরণার নাম।
সুনামগঞ্জে প্রথম আলোর ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর প্রীতি সম্মিলনীতে বক্তারা এসব কথা বলেন।
সুনামগঞ্জ পৌর শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে মঙ্গলবার বিকেলে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে প্রথম আলো বন্ধুসভা। এতে বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার বিশিষ্টজনেরা অংশ নেন।
অনুষ্ঠানে সুনামগঞ্জের দুজন গুণী ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এঁরা হলেন, প্রবীণ শিক্ষক ও সুনামগঞ্জে স্কাউটস আন্দোলনের সংগঠক ধূর্জটি কুমার বসু এবং শিক্ষানুরাগী ও সমাজকর্মী মো. গোলাম কিবরিয়া। তাঁদের হাতে ফুল ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অতিথিরা। অনুষ্ঠানে আলোচনার ফাঁকে ফাঁকে কবিতা, নৃত্য ও সংগীত পরিবেশনা ছিল।
আলোচনায় অংশ নিয়ে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, প্রথম আলোর একটি বড় গুণ হলো বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ। যে কারণে পাঠকের কাছে একটা আস্থার জায়গা তৈরি হয়েছে। এর বাইরে তাদের নানা ইতিবাচক উদ্যোগ রয়েছে। ভবিষ্যতেও প্রথম আলো বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি ভালো কাজের সঙ্গে থাকবে, এটাই প্রত্যাশা।
প্রবীণ শিক্ষক ধূর্জটি কুমার বসু বলেন, শুরু থেকে প্রথম আলোর সঙ্গে আছি। এখন প্রথম আলোর বয়স ২৩, আর আমার ৮০। তবুও প্রথম আলোর কোনো আয়োজন শুনলেই ছুটে আসি। তিনি বলেন, বাংলদেশকে নিয়ে আমাদের অনেক আশা, অনেক স্বপ্ন। প্রথম আলো যখন বাংলাদেশের জয়ের কথা বলে, আলোর পথ দেখায়, তখন ভরসা পাই।
মো. গোলাম কিবরিয়া বলেন, সত্য বলতে ও প্রকাশ করতে যে সাহস ও দৃঢ়তা দরকার প্রথম আলোর সেটা আছে। ২৩ বছর ধরে তারা সেটি দেখিয়ে আসছে। আমরা জানি, এই যাত্রাপথ মসৃণ ছিলনা। তবুও প্রথম আলো পথ হারায়নি। আমরা প্রথম আলোর সঙ্গে আছি।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জের প্রবীণ নারীনেত্রী শীলা রায়, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ রজত কান্তি সোম, সুনামগঞ্জ বন্ধুসভার সভাপতি রনজিত কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলম সিদ্দিকী। সুনামগঞ্জ বন্ধুসভার সদস্য মো. রাজু আহমেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জে প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক খলিল রহমান।
অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন সুনামগঞ্জের বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী দেবদাস চৌধুরী ও তুলিকা ঘোষ চৌধুরী, বন্ধুসভার মাকসুদুর রহমান দিপু ও কাব্য চক্রবর্তী। কবিতা আবত্তিৃ করেন বন্ধুসভার সদস্য তাজকিরা হক তাজিন, নৃত্য পরিবেশন করেন মৌমিতা বিশ্বাস। পরে সবাই মিলে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ শিক্ষক যোগেশ^র দাশ, জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী মতিউর রহমান পীর, সমাজকর্মী রমেন্দ্র কুমার দে, লেখক সুখেন্দু সেন, কবি মুনমুন চৌধুরী, ক্রীড়া সংগঠক পারভেজ আহমেদ চৌধুরী, কবি ইশবাল কাগজী, কবি ও লেখক কুমার সৌরভ, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, সুনামগঞ্জ সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি আইনজীবী আইনুল ইসলাম বাবলু, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী সালেহ আহমদ, দৈনিক সুনামকণ্ঠে সম্পাদক বিজন সেন রায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দুর রহমান, জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি গৌরি ভট্টাচার্য, নারীনেত্রী সঞ্চিতা চৌধুরী, আরতি পাল, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি পঙ্কজ কান্তি দে, শিক্ষক নেতা শুভংকর তালুকদার মান্না, নারীনেত্রী কানিজ সুলতানা, কবি ও লেখক মাহবুবুল হাসান শাহীন, হাওর ও পরিবেশ উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কাসমির রেজা, আইনজীবী এনাম আহমেদ, সুনামগঞ্জ বন্ধুসভার সাবেক সভাপতি অনিসিমাস চৌধুরী, জেলা উদীচী শিল্পীগোষ্ঠির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, কবি ও লেখক এস ডি সুব্রত, আইনজীবী মতিয়া চৌধুরী, সমাজকর্মী গোলাম হাফিজ, মারুফ আহমেদ মান্না, এনটিভির স্টাফ রিপোর্টার দেওয়ান গিয়াস চৌধুরী, নাট্যকর্মী দেবাশীষ তালুকদার শুভ্র, সামির পল্লব, মেহেদী হাসান লিটন, বন্ধুসভার প্রদীপ পাল, আশরাফুজ্জামান বাবলু, শাহিদুর রহমান, কনক চক্রবর্তীসহ সুনামগঞ্জ বন্ধুসভার সদস্যরা।

  • [১]