প্রিয়জন পুনর্মিলন / প্রবাসীদের সম্মানে প্রতিবছর অনুষ্ঠান আয়োজন দাবি

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জের প্রবাসীদের অংশগ্রহণে প্রিয়জন পুনর্মিলন বৈঠকী আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের পাশাপাশি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। প্রবাসী ও স্থানীয়রা একে অপরকে একসাথে দেখতে পেয়ে অনেকেই আবেগ আপ্লুত হয়ে যান।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরি সম্মেলন কক্ষে সুনামগঞ্জ প্রবাসী সম্মাননা সংসদের আয়োজনে এই পুনর্মিলন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
কবি সাব্রী সাবেরিনের সভাপতিত্বে ও আশরাফ হোসেন লিটনের সঞ্চালনায় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কবি ও গবেষক, বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর রজত কান্তি সোম, পৌর ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ শেরগুল আহমেদ, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, কবি ও গীতিকার ইশতিয়াক রুপু, মারুফ চৌধুরী, জুলকার নাইন হায়দার সহ সুনামগঞ্জের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও প্রবাসীরা। বৈঠকে সবাই বছরে অন্তত একবার প্রবাসীদের নিয়ে সরকারি বা স্থানীয়ভাবে একটি অনুষ্ঠান আয়োজনের দাবি জানান।
প্রবাসী নারগিস বেগম বললেন, এই শহরে আমার বেড়ে ওঠা। এই শহরের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমি কবিতা পড়েছি, উপস্থাপনা করেছি। বিদেশে গিয়ে এই অভ্যাস হারিয়ে গেছে। চাইলেও সুনামগঞ্জের ছোঁয়া খুঁজে পাই না।
এজাজ আহমেদ অপু বলেন, সুনামগঞ্জকে অনেক মনে পড়ে। ঘুমাইলেও স্বপ্ন দেখি সুনামগঞ্জ। সুনামগঞ্জে খেলাধুলা, সুনামগঞ্জে বেড়ে ওঠা। সুনামগঞ্জের সড়ক, রিক্সা, হাঁটা চলা এসব স্মৃতি বয়ে নিয়ে বেড়াই প্রবাসে।
সাব্রী সাবেরিন বললেন, আমাদের প্রবাসী সবাই প্রায়ই দেশে আসেন। দেশে এসে যার যার মতো ব্যস্ত হয়ে পড়েন। কারোর সাথে কারো দেখা হয় না, কথা হয় না। এই প্রবাসীদের সম্মানে দেশে সরকারি ভাবে বা স্থানীয়ভাবে অন্তত একবার একটা অনুষ্ঠান আয়োজন করা প্রয়োজন। যেই অনুষ্ঠানে সবাই একত্রিত হবেন।