বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ, চলেনি জেনারেটর

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
ট্রান্সফরমার বিকল হওয়ায় ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত সোমবার বিকেল থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়নি। ফলে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি থাকা রোগীসহ ডাক্তার, নার্স ও কর্মচারীদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।
গত সোমবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ধর্মপাশায় বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হয়। এতে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ট্রান্সফরমারটি বিকল হয়। তখন থেকেই বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে হাসপাতাল। এতে করে হাসপাতালে পানি সবরবরাহ বন্ধ হয়। অন্ধকারে থাকতে হয়েছে রোগীদের। হাসপাতালে একটি জেনারেটর থাকলেও সোমবার রাতে জেনারেটর বন্ধ ছিল। ফলে শ্বাসকষ্টের রোগীরা হাসপাতালে ন্যাবুলাইজার ব্যবহার করতে না পেরে ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতে টাকার বিনিময়ে সেবা নিয়েছেন।
হাসপাতালে ভর্তি থাকা সেলবরষ ইউনিয়নের বগারপাচুর গ্রামের শিশু জাকিয়া আক্তার ও একই ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের শিশু মোশারফ হোসনের পরিবারের লোকজনসহ কয়েকজন জানায়, সোমবার রাতে হাসপাতালে কোনো বৈদ্যুতিক বাতি জ্বলেনি। সৌরবিদ্যুতের স্বল্প আলোতে তাদেরকে রাত পার করতে হয়েছে। বিদ্যুৎ না থাকায় টয়লেটে পানি ছিল না। ফলে তাদেরকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মুহাম্মদ এমরান হোসেন মুঠোফোন রিসিভি না করায় বক্তব্য জানা যায়নি। এমনকি মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে হাসপাতালে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।
তবে ওইদিন বিকেল ৫টার দিকে ধর্মপাশা পল্লীবিদ্যুৎ অভিযোগ কেন্দ্রের ইনচার্জ জইন উদ্দিন বলেন, ‘ট্রান্সফরমার সংগ্রহ করতে নেত্রকোনায় রয়েছি। দ্রুত ট্রান্সফরমার স্থাপন করা হবে।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মুনতাসির হাসান বলেন, ‘বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।’