বিষ পান করে মায়ের পর ছেলের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার
বিষপানে মায়ের মৃত্যুর একদিন পর একই ঘটনায় মঙ্গলবার সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। শাল্লার সুলতানপুর গ্রামে গত সোমবার দুই শিশু সন্তানসহ বিষপান করে মৃত্যু হয় আঁখি আক্তার (২৬) নামের এক গৃহবধূর। এ ঘটনায় দুই ছেলে তাৎক্ষণিক বেঁচে গেলেও আজ মঙ্গলবার দুপুরে রবিউল মিয়া (৫) নামে তার ছোট সন্তান মারা গেছে। সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় রবিউল মিয়ার।
জানা যায়, পারিবারিক কলহের জেরে সোমবার গৃহবধূ আঁখি আক্তার ও তার দুই সন্তানকে নিয়ে বিষপান করেছিলেন। পরে গৃহবধূ আঁখি আক্তারের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃৃত্যু হয়। তার দুই সন্তানকে দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রথমে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মঙ্গলবার সেখানেই ছোট ছেলে রবিউলের মৃৃত্যু হয়। বিষপানের বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ।
শিশু সন্তানের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শাল্লা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম।
নিহত আঁখি আক্তার শাল্লার সুলতানপুর গ্রামের শামসুল হকের স্ত্রী। সিয়াম মিয়া (৭) ও রবিউল মিয়া (৫) তাদের সন্তান। স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের মতো সোমবার হাওরে মাছ ধরতে যান শামসুল হক। দুপুরে বাড়ি এসে দেখতে পান স্ত্রীসহ তার দুই সন্তান মৃত্যুযন্ত্রণায় ছটফট করছে। এ সময় সন্তানরা জানায় তাদের বিষ খাওয়ানো হয়েছে। পরে তিনি চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এসে তাদের শাল্লা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাদের সিলেট নেওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। সেখানে যাওয়ার পথে আঁখি আক্তার মারা যান।