ভাড়া বাসা থেকে স্কুল শিক্ষিকার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার
পৌর শহরের জামতলার একটি ভাড়া বাসা থেকে এক শিক্ষিকার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঐ শিক্ষিকা শান্তিগঞ্জ উপজেলার খাবিলাখাই গ্রামের মৃত নিবারন চন্দ্র পালের মেয়ে সমাপ্তি পাল ওরফে সোনালী (৩২)। তিনি একই উপজেলার মুক্তাখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ছিলেন।
রবিবার দুপুর দেড়টার দিকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের জামতলায় দ্বিতল বিশিষ্ট একটি বাড়ির নিচ তলার একটি কক্ষ থেকে পুলিশ এই মৃতদেহ উদ্ধার করে। তিনি দীর্ঘদিন যাবত বাসা ভাড়া নিয়ে একা এই বাসায় থাকতেন। সোনালীর পরিবার সিলেটের টিলাগড় এলাকায় থাকেন।
প্রতিবেশীরা জানান, স্কুল শিক্ষিকা একাই এই বাসায় থাকতেন। রবিবার সকালে তার মামাতো ভাই এসে ঝুলন্ত অবস্থায় সোনালীকে দেখতে পান। পরে আশপাশের লোকজন পুলিশে খবর দেন।
মামাতো ভাই তপু পাল বললেন, সকালে স্কুলে অনুপস্থিতির কারণ জানতে চেয়ে সোনালীর স্কুলের প্রধান শিক্ষক আমাকে ফোন দেন। পরে খোঁজ নিতে আমি সোনালীর ভাড়া বাসায় এসে দেখি দরজা বন্ধ। পরে ধাক্কা দিয়ে দেখি দরজা টেবিল দিয়ে আটকানো এবং ভিতরে সোনালীর মৃতদেহ ঝুলছে।
নিহতের ছোট বোন বললেন, রাত দেড়টার দিকে সোনালী আমাকে বেশ কয়েকবার ফোন দিয়েছে। ঘুমে থাকায় ফোন ধরতে পারিনি। পরে সকালে সোনালীর মৃত্যুর খবর পাই।
সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইখতিয়ার উদ্দিন বলেন, মৃতদেহের সুরতহাল তৈরি করেছেন তারা। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন ও তদন্ত শেষে বাকি তথ্য জানা যাবে।