মানুষের প্রিয় মুখ হিসেবে পরিচিত ছিলেন মউজদীন

স্টাফ রিপোর্টার
মমিনুল মউজদীন স্মৃতি একাডেমী কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করা হয়েছে। উদ্বোধন খেলায় অংশগ্রহণ করে দিরাই ফুটবল একাডেমি ও সেবুল স্পোর্টিং ক্লাব। খেলায় সেবুল ফুটবল একাডেমি ২—১ গোলে দিরাই ফুটবল একাডেমিকে পরাজিত করে।
মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩টায় সুনামগঞ্জ জেলা স্টেডিয়ামে প্রধান অতিথি হিসাবে খেলার উদ্বোধন খেলা করেন সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত। এরপর সুনামগঞ্জ জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি জুনেল আহমদ রাজরান’র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তিনি।
মেয়র বলেন, মমিনুল মউজদীন মানুষকে উজ্জীবিত করেছিলেন, এখনও মানুষ তাঁর স্মৃতিচারণার মধ্যে থাকে। তিনি বলেন, আমাদের একের প্রতি অন্যের যে শ্রদ্ধা সেটা যেনো কোন অবস্থাতেই রাজনীতির কারণে নষ্ট না হয়। আমরা একটা শান্তির শহরে বসবাস করি। ছোট এই শহরে শান্তির ধারাবাহিকতা যেনো আমরা বজায় রাখতে পারি। এই জিনিসটাই বারবার আমাকে তাগিদ দেয়, আমার ভেতরে কাজ করে। একই সাথে আমি চেষ্টা করি—এই জেলার অগ্রজরাÑ যারা অতীতে কাজ করে গেছেন, তাদের পদচারণার জায়গা যেনো আরো বেশি সমৃদ্ধ হয়।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রয়াত কবি মমিনুল মউজদীনের বড় ভাই সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন বলেন, মমিনুল মউজদীন নিজেই একজন ক্রীড়াবিদ ছিলেন। উনি ক্রিকেট খেলতে ভালোবাসতেন। সাথে সাথে উনি একজন ক্রীড়া সংগঠনের ভূমিকাও পালন করেছেন। সাফল্যের সাথে পৌরসভার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মানুষের মনোযোগ আকর্ষণ করেছেন, মানুষের প্রিয় মুখ হিসেবেও উনি পরিচিতি লাভ করেছেন।
এছাড়াও বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাজির আহমদ চৌধুরী ও মো. নানু মিয়া, বর্তমান সহসভাপতি পারভেজ আহমদ চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. সেলিম আহমেদ।
এ ছাড়াও জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুল হক রাজা, কোষাধ্যক্ষ আবদুল্লাহ আল নোমান, জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জুনেল আহমদ রাজরান, সদস্য দিলারা বেগম ও রেহানা আক্তার চৌধুরী, পৌরসভার কাউন্সিলর আহমদ নূর, ক্রীড়া সংগঠক জি এম তাশহিজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সুনামগঞ্জ জেলার ক্রীড়া সংস্থার কোষাধ্যক্ষ আব্দুল্লা আল নোমান।
প্রসঙ্গত, টুর্নামেন্টে ১০টি দল অংশগ্রহণ করেছে। দলগুলো হলো— দিরাই ফুটবল একাডেমী, সেবুল স্পোর্টিং ক্লাব, জাবেদ ফুটবল একাডেমী, খেলাঘর ফুটবল একাডেমী, বিশ্বম্ভরপুর ফুটবল একাডেমী, নান্দনিক ফুটবল একাডেমী, সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমী, সুনামগঞ্জ জুনিয়র ফুটবল একাডেমী, সানজানা ফুটবল একাডেমী এবং ছিলাউরা ফুটবল একাডেমী। টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১১ মার্চ। সুনামগঞ্জ জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের ব্যবস্থাপনায় ও সুনামগঞ্জ পৌরসভার সহযোগিতায় প্রতিদিন বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে শুরু হবে খেলা।
সুনামগঞ্জের মরমি সাধক হাসন রাজার প্রপৌত্র কবি মমিনুল মউজদীন সুনামগঞ্জ পৌরসভার একটানা তিনবারের নির্বাচিত চেয়রাম্যান ছিলেন। ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জ ফেরার পথে স্ত্রী তাহেরা চৌধুরী ও ছেলে কাহলিল জিবরানসহ এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান।