কবি মমিনুল মউজদীনের মৃত্যুবার্ষিকীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা

স্টাফ রিপোর্টার
মরমি সাধক হাসন রাজার প্রপৌত্র ও সুনামগঞ্জ পৌরসভার তিনবারের পৌর চেয়ারম্যান প্রয়াত কবি মমিনুল মউজদীনের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্মা জানানো হয়েছে। মমিনুল মউজদীন স্মৃতি সংসদের পক্ষ থেকে এই আয়োজন করা হয়।
২০০৭ সালের এই দিনে ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জ ফেরার পথে বাক্ষ্রণবাড়িয়া জেলার সরাইলে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মমিনুল মউজদীন, তাঁর স্ত্রী তাহেরা চৌধুরী, ছেলে কাহলিল জিবরান ও ব্যক্তিগত গাড়ি চালক কবির মিয়া মারা যান। মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় তাঁদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন ও বিশেষ মোনাজাত হয় আয়োজকদের পক্ষ থেকে।
মমিনুল মউজদীন সুনামগঞ্জ থেকে ২০০২ সালে মাদকের বিরুদ্ধে প্রথম আন্দোলন শুরু করেন। পরে সেটি দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। একইভাবে তিনি নিরাপদ সড়কের দাবি, পরীক্ষায় নকল ও প্রশাসনিক দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করে দেশব্যাপী পরিচিতি পান। তিনি পৌরসভার নিয়মিত কাজের বাইরে পৌর শহরে একটি কলেজ ও ছয়টি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর সময়ে শহরের সব মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিন এবং মন্দিরের পুরহিতদের ভাতা দেওয়ার বিষয়টি চালু করেন।
কবি মমিনুল মউজদীনের প্রকাশিত দুটি কাব্যগ্রন্থ হলো: ‘এ শহর ছেড়ে পালাবো কোথায়’ ও ‘হৃদয় ভাঙ্গার শব্দ’।