নতুন কমিটির দাবি যুবদলের বঞ্চিত নেতাদের

কাজি জমিরুল ইসলাম মমতাজ ও ইয়াকুব শাহরিয়ার
দক্ষিণ সুনামগঞ্জে নবগঠিত যুবদল কমিটি নিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে নতুন দাবি তুলেছেন বঞ্চিত ও পদধারী নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আগের কমিটি বাতিল ও নতুন কমিটি গঠনের জোর দাবি জানানো হয়।
পদত্যাগকারী আবদাল মিয়া, জিয়াউর রহমান, আবদুল মজিদ, সৈয়দ আলম, হাছনাত মিয়া, হুমায়ুন আহমেদ ও আতাউর রহমানের স্বাক্ষরিত প্যাডের লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন যুবদল নেতা জিয়াউর রহমান। বঞ্চিত নেতাদের পক্ষে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, উপজেলার একটি সাংগঠনিক টিম থাকলেও টিমের কারো সাথে কমিটি প্রদানকারীরা কোনো যোগাযোগ করেননি। কোনো ধরণের আলোচনা ছাড়াই কেন্দ্রিয় কমিটির সহ-সভাপতি আনছার উদ্দিনের পকেট কমিটিকে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। যা সম্পূর্ণভাবে পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ। যা দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ত্যাগী, পরিশ্রমি ও কারাবরণকারী নেতাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটিয়েছে।
লিখিত বক্তব্যে কেন্দ্রিয় নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে আরও বলেন, যদি এক সপ্তাহের মধ্যে এই ভিত্তিহীন, সমালোচিত ও পকেট কমিটি নিয়ে সৃষ্ট সমস্যার সমাধান না করেন তাহলে ভিত্তিহীন এই কমিটিকে প্রতিহত করে জাতীয়তাবাদী যুবদল যেকোনো কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।
সংবাদ সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবদল নেতা আবদাল মিয়া, আবদুল মজিদ, জগলু আহমদ, এডভোকেট সৈয়দ আলম, আঙ্গুর মিয়া, হুমায়ুন কবির, হাসনাত মিয়া, হুমায়ুন আহমদ, আতাউর রহমান, সুয়েব আহমদ, রোমান আহমদ, ইয়াহিয়া আহমদ, জাহিদুল ইসলাম, আমজাদ আলী, পাবেল আহমদ, শাহীন মিয়া, দোলন মিয়া, জসিম উদ্দিন, মনোয়ার হোসেন, হাসান মিয়া, রিপন মিয়া, বুলবুল আহমদ, পিন্টু দাশ, দিলোয়ার হোসেন, ইসলাম উদ্দিন, জাকার উদ্দিন, কুতুব উদ্দিন, মো. রাজু, নিজাম উদ্দিন, আমির হোসেন ও মাছুম আহমদ প্রমুখ।