শান্তিগঞ্জে স্কুলে ফিরতে পেরে আনন্দিত শিক্ষার্থীরা

শান্তিগঞ্জ অফিস
করোনার কারণে বাধ্যতামূলক দীর্ঘ ছুটি কাটিয়ে বিদ্যালয়ে আসতে পেরে খুবই আনন্দিত শিক্ষার্থীরা। রবিবার প্রথমদিন কোনো ক্লাস না করিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ নানান বিধি নিষেধের উপর বিস্তারিতভাবে ব্রিফিং করেন শিক্ষকরা।
উপজেলার একাধিক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকেই স্কুল ইউনিফর্ম পড়ে নিজ নিজ বিদ্যালয়ে আসছেন শিক্ষার্থীরা। কোনো কোনো বিদ্যালয়ে শ্রেণি কক্ষে আবার কোনো বিদ্যালয়ের প্রবেশদ্বারে স্বাগত জানানো হচ্ছে আগত শিক্ষার্থীদের। প্রতি বেঞ্চ-ডেস্কে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে দু’জন করে শিক্ষার্থী বসানো হয়েছে। হাত ধুয়ে ক্লাসে প্রবেশের জন্য রয়েছে ওয়াশব্লক। এছাড়াও স্কুলের আঙিনায় টানানো হয়েছে নির্দেশনা ব্যানার। শিক্ষকরা ক্লাসে ক্লাসে স্বাস্থবিধির উপর দিচ্ছেন বিস্তারিত নির্দেশনা।
পাগলা সরকারি মডেল হাইস্কুল এন্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী আঞ্জুমান আক্তার, কানন দাস, দশম শ্রেণির সুরাইয়া আক্তার সালমা ও সপ্তম শ্রেণির নুসরাত জাহান ইভার সাথে। তারা বলেন, আজ আমাদের অত্যন্ত খুশির দিন। এখন থেকে আমরা স্কুলে আসতে পারবো নিয়মিত।
সদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুমা চক্রবর্তী বলেন, আমার স্কুলের ছোট্ট সোনামনিরা স্কুলে ফিরতে পেরে আনন্দিত। স্কুলটি যেনো নতুন করে প্রাণ ফিরে পেয়েছে। আমার জন্য এটিই সবচেয়ে আনন্দের।
শান্তিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আনোয়ার উজ জামান জানান, দীর্ঘদিন পর স্কুল খুলেছে। দীর্ঘদিন পর শিক্ষার্থীরা স্কুলে এসেছে। তাদের আগমন যেন আনন্দময় হয়, সেই দিকে লক্ষ রেখে বিদ্যালয়ের বেঞ্চ সহ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ও মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।