শান্তিগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কমিটির নির্বাচন/সভাপতি রিপন, সম্পাদক জিলানী

শান্তিগঞ্জ অফিস
উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তিগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির ত্রি—বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার শান্তিগঞ্জ বাজার সংলগ্ন স্থানীয় মাহবুবা কমিউনিটি সেন্টারে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। বিকাল ৫টায় বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. জাহিদুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুদ আহমদ, সমবায় সমিতি লিঃ নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা সন্দীপ বিশ্বাস।
নির্বাচনে সভাপতি পদে আনারস প্রতীকে ২০৪ ভোট পেয়ে বিজয় লাভ করে দলিল লিখক সমিতির সাবেক সভাপতি রিপন তালুকদার। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি সাবেক সভাপতি জুয়েল আহমদ চেয়ার প্রতীকে পেয়েছেন ১৪০ ভোট।
সহ সভাপতি পদে মই প্রতীকে জমিল মিয়া ২০৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী শ্যামল দেব দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ১৪৭ ভোট।
সাধারণ সম্পাদক পদে ফুটবল প্রতীকে ১৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিলানী মিয়া। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবু হেলাল চাকা প্রতীকে ১৭৯ ভোট পেয়েছেন।
সাংগঠনিক সম্পাদক পদে সাহাব উদ্দীন মোটর সাইকেল প্রতীকে ২২৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি গোলাপ ফুল প্রতীকে মৃদুল দাশ পেয়েছেন ১৩৪ ভোট।
প্রচার সম্পাদক পদে আপেল প্রতীকে ১৯২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আতিকুর রহমান। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি সাদিকুর রহমান কাপ পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১৬৪ ভোট।
সদস্য পদে কাঁঠাল প্রতীকে ২২৯ ভোট পেয়ে ১ম হয়েছেন মো সাধু মিয়া। আম প্রতীকে ২২৫ ভোট পেয়ে ২য় হয়েছেন মো. সালেহ আহমদ সাজু। মোবাইল ফোন প্রতীকে ২২৪ ভোট পেয়ে ৩য় হয়েছেন মো. নুর হোসেন। গরুর গাড়ী প্রতীকে ২১৬ ভোট পেয়ে ৪র্থ হয়েছেন আব্দন নুর। টিউবওয়েল প্রতীকে ১৭৭ ভোট পেয়ে ৫ম হয়েছেন মো. রায়হান আহমদ।
এছাড়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সহ সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন মো. আব্দুল ইসলাম মিলন ও অর্থ সম্পাদক পদে হাফিজ মো. রশিদ আহমদ।