স্বশরীরে না থেকেও ছিলেন ইলিয়াস আলী

স্টাফ রিপোর্টার
সিলেটের বালাগঞ্জ—বিশ^নাথ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা নিখেঁাজ ইলিয়াস আলী’র প্রতি সহানুভূতিশীল ছিলেন সমাবেশে আসা হাজার হাজার দলীয় কর্মী সমর্থক। সমাবেশ মঞ্চের উপস্থাপক নিখেঁাজ এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী ও বিএনপি চেয়াপার্সনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনাকে বক্তব্য দেবার জন্য আহ্বান জানালে, মাঠে থাকা হাজার হাজার নেতা কর্মীকে স্লোগান দিতে দেখা যায়।
লুনা বক্তব্য দেবার সময় বলছিলেন,‘মানববতা লঙ্ঘনকারী আওয়ামী লীগ সরকার ইলিয়াস আলীসহ হাজারো নেতা কর্মীকে গুম করেছে। তাদের বিচার এই দেশের জনগণই করবে। তখনো মাঠে দেখা গেছে হাজার হাজার দলীয় কর্মী সমর্থককে ইলিয়াস আলীর নাম ধরে স্লোগান দিতে।
বিএনপির কেন্দ্রীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ^র রায় বক্তব্য দেবার সময় বললেন, ইলিয়াস আলী নিখেঁাজ হয়েছেন। গণতন্ত্রও খুন হয়েছে। আমরা গণতেন্ত্রের সঙ্গে ইলিয়াস আলীকেও খুঁজছি। এসময় মাঠে হাজারো নেতা কর্মী ইলিয়াস আলীর স্লোগান দেন।
সমাবেশের প্রধান অতিথি বিএনপি মহাসচিব মিজার্ ফখরুল ইসলাম আলমগীর বক্তৃতা দেবার সময় যখন ইলিয়াস আলী প্রসঙ্গ আসে তখনো মাঠে আবেগগণ পরিবেশ তৈরি হয়। ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলছিলেন,‘২০১১ সালে এই আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের সমাবেশ মঞ্চে খালেদা জিয়ার পাশে বসেছিলেন আপনাদের প্রিয় নেতা ইলিয়াস আলী। আজ ইলিয়াস আলী আমাদের সমাবেশে নেই। তার সন্তান প্রতিদিন বাবার জন্য অপেক্ষা করে, বাবার মমতা পাবার অধীর আগ্রহ কাজ করে তার মধ্যে, তার মহিয়সী স্ত্রী এতো কষ্টের পরও থেমে থাকেননি। মানুষের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের জন্য লড়াই করছেন। আমি স্যালুট জানাই এই সংগ্রামী নারীকে।