হাওরে বেড়িবাঁধের কাজে নেই অগ্রগতি, দুশ্চিতায় কৃষকরা

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের কোন অগ্রগতি নেই। গত ১৫ ডিসেম্বর হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের একটি প্রকল্পের কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হলেও আজ ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত হাওরের বেড়িবাঁধ নির্মাণে আর কোন অগ্রগতি নেই। ফলে কৃষকরা দুশ্চিন্তায় ভুগছেন। হাওর ঘুরে কৃষক ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে কথা বলে হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ কাজের দৃশ্যমান কোন অগ্রগতির খবর মিলেনি। শুধু মাত্র উদ্বোধনকৃত জায়গায় নামমাত্র মাটি পড়ে থাকতে দেখা গেছে।
কৃষক ও পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, জগন্নাথপুর উপজেলায় এবার ১৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধের জন্য ২৮টি প্রকল্পের মাধ্যমে বাঁধের কাজ শুরুর লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে গত ১৫ ডিসেম্বর নলুয়ার হাওরের ভূরাখালি এলাকায় একটি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার কাজ তদারক কমিটির সভাপতি সাজেদুল ইসলাম।
উপজেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, ২৮ প্রকল্পের জন্য এবার প্রাথমিকভাবে তিন কোটি ২১ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। গত ৫ জানুয়ারি উপজেলা কমিটির সভায় ২৮ প্রকল্পের কমিটি অনুমোদন করা হয়।
নলুয়ার হাওরে কথা হয় দাসনোওয়াগাঁও গ্রামের কৃষক নেতা গুনেন্দ্র দাশ এর সঙ্গে। তিনি বলেন, হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের এখন পর্যন্ত কোন কাজ শুরু হয়নি। ১৫ ডিসেম্বর একটি প্রকল্পের উদ্বোধন করা হলে নামমাত্র মাটি কাটার পর থেকে ওই প্রকল্পের কাজ বন্ধ রয়েছে। তিনি বলেন, জেলার বৃহৎ হাওর নলুয়ার হাওরটি আগাম বন্যায় ফসল হানির ঝুঁকিতে থাকে। এ অবস্থায় আজ ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বাঁধের কাজ শুরু না হওয়ায় কৃষকরা চিন্তিত।
নলুয়ার হাওরে উদ্বোধন হওয়া প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি আহমেদ আলী বলেন, ১৫ ডিসেম্বর আমার প্রকল্পের কাজ উদ্বোধন হয়। ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সহ নানা ব্যস্ততায় কাজ শুরু করতে পারিনি। দ্রুত কাজ শুরু করে দুই সপ্তাহের মধ্যে শেষ করব।
হাওর বাঁচাও আন্দোলন জগন্নাথপুর উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেন, হাওর ঘুরে এখন পর্যন্ত হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের কাজ শুরুর চিত্র দেখা যায়নি। ফসল রক্ষায় এমন গাফিলতি মেনে নেওয়া যায় না। তিনি দ্রুত কাজ শুরু করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করতে দাবি জানান।
পানি উন্নয়ন বোর্ড জগন্নাথপুর উপজেলার মাঠ কর্মকর্তা ও ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার তদারক কমিটির সদস্য সচিব হাসান গাজী বলেন, নানা কারণে এবার হাওরে বাঁধের কাজ শুরু করতে বিলম্ব হচ্ছে।
আমরা প্রকল্প কমিটিগুলোকে কার্যাদেশ ও প্রথম কিস্তির টাকা দেওয়া শুরু করেছি। আশা করছি আগামী সপ্তাহে সবকটি প্রকল্প কমিটি কে প্রথম কিস্তির টাকা দিয়ে জোরে শোরে কাজ শুরু করাতে পারব।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংস্কার তদারক কমিটির আহ্বায়ক সাজেদুল ইসলাম বলেন, হাওরে মাটি কাটার খনন যন্ত্র দিয়ে ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ করার উপযোগী পরিবেশ তৈরি না হওয়ায় কাজ শুরুতে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। এখন পুরোদমে কাজ চলবে এবং নির্ধারিত সময় ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে কাজ শেষ হবে।