হাছনরাজা মিউজিয়ামের সামনের পুকুর ভরছে আবর্জনায়

স্টাফ রিপোর্টার
হাছনরাজার বাড়ি, হাছনরাজা মিউজিয়াম ও তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের পুকুর ময়লা-আবর্জনায় ভরাট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। পুকুরের পাশেই রয়েছে পৌরসভার ডাস্টবিন। কিন্তু ডাস্টবিন উপচে পড়ে আবর্জনায় ভরছে পুকুর। এতে দূষিত হচ্ছে পানি, দূষিত হচ্ছে পরিবেশ।
সরেজমিনে দেখা যায়, পুকুরের পানিতে ভেসে বেড়াচ্ছে পলিথিনসহ নানা আবর্জনা। আবর্জনার উৎকট গন্ধ সহ্য করেই পুকুরের পাশের সড়ক দিয়ে হাঁটছে মানুষ। পুকুরের অন্যপাড়ে আছে জনবসতিও। পুকুর পাড়ের ডাস্টবিন থেকে উপচে পড়ছে ময়লা-আবর্জনা। আবার আবর্জনা সরিয়ে পানি সংগ্রহ করছে অনেকে। এতে নানা রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও আছে এই এলাকায়।
এলাকাবাসী জানান, পুকুর ও চারপাশ আবর্জনা মুক্ত করলেই পাল্টে যাবে এলাকার পরিবেশ। প্রতিদিনি অনেক মানুষ হাছনরাজার বাড়ি ও মিউজিয়াম দেখতে এসে দুর্গন্ধযুক্ত পরিবেশের মুখোমুখি হয়। এতে এলাকার সুনাম ক্ষুন্ন হয়। পুকুর পরিচ্ছন্ন এবং পুকুরের চারপাশে ফুলের গাছ, ফুলের টব, থাকলে এলাকার পরিবেশ সুন্দর হয়ে যাবে। কিন্তু গৃহস্থালির আবর্জনা পুকুর ও চারপাশের পরিবেশকে অস্বাস্থ্যকর করেছে।
স্থানীয় বাসিন্দা মুরাদ মিয়া বললেন, এই পুকুরের পাশে হাছনরাজা মিউজিয়াম আছে। হাছনরাজার মিউজিয়াম ও হাছনরাজার বাড়ি দেখতে প্রতিদিনই দেশ বিদেশের মানুষ আসে। পুকুরের পাশে তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে। পুকুরের চারপাশে ময়লা আবর্জনা থাকায় সুন্দর পরিবেশটা খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের দাবি পুকুরের পাশে যে ময়লা আবর্জনা ও ডাস্টবিন রয়েছে পৌরসভা থেকে এসব পরিষ্কার করা হোক।
শাকিল হোসেন বললেন, যেহেতু এই জায়গায় মানুষ ঘুরতে আসে, সেহেতু পুকুরের চারপাশ পরিচ্ছন্ন রাখা জরুরি।
জনি আহমদ বললেন, পুকুরের বিভিন্ন অংশে ফেলা হয় গৃহস্থালি বর্জ্য। পুকুরের পাশে পৌরসভার দেয়া ডাস্টবিন উপচে ময়লা-আবর্জনা পড়ছে পুকুরে। নষ্ট হচ্ছে পুকুরের পানি। হাছনরাজা মিউজিয়াম দেখতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মানুষ আসে। পুকুরের অবস্থা দেখে পর্যটকরা হতাশ হয়।
সাত নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আহসান জামিল আনাছ বললেন, আমার নিজের কাছেও খুব খারাপ লাগে। পাশেই প্রাইমারি স্কুল, হাছনরাজার বাড়ি ও হাছনরাজার মিউজিয়াম রয়েছে, অথচ সড়কের পাশে পুকুরে ময়লা আবর্জনার স্তুপ। এখান থেকে কিছুদিন পর পর ময়লা নিয়ে যায় পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। এলাকার মানুষের কাছে আমারও অনুরোধ, তারা যেন পুকুরে কেউ ময়লা আবর্জনা ফেলে পরিবেশ নষ্ট না করেন।