১৮ বছর পর মাঠে গড়ালো ১ম বিভাগ ফুটবল লীগ

স্টাফ রিপোর্টার
প্রাণ ফিরেছে সুনামগঞ্জ জেলার ফুটবল অঙ্গনে। দীর্ঘ ১৮ বছর পর মাঠে গড়ালো ১ম বিভাগ ফুটবল লীগ। ২০০৪ সালের পর থেকে নানা জটিলতায় সুনামগঞ্জে পূর্ণাঙ্গ ফুটবল লীগ অনুষ্ঠিত হয়নি। এর আগে ২০১৩ সালে প্রথম বিভাগ শুরু করা হলেও খেলা সমাপ্ত না করে সেটি বন্ধ হয়ে যায়।
দীর্ঘ ৮ বছর পর শনিবার বিকেলে সুনামগঞ্জ জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের আয়োজনে জেলা স্টেডিয়ামে হক ব্রিকস প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ উদ্বোধন করেন সুনামগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ।
এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুনামগঞ্জ আবু সাঈদ, পৌর প্যানেল মেয়র আহমেদ নুর, কাউন্সিলর আহসান জামিল আনাছ সহ অন্যান্য ক্লাব ও ক্রীড়া কর্মকর্তারা।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিছবাহ বলেন, সুনামগঞ্জে একটি অত্যাধুনিক স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য ইতিমধ্যে আমার কথা হয়েছে। আমি আশ্বাসও পেয়েছি খুব শীঘ্রই সেটি আমরা পেয়ে যাবো। আমরা আমাদের তরুণদের হাতে মাদকের বদলে বই, ব্যাট, বল তুলে দিতে চাই। কোনো মাদকের ছোবল যেন আমাদের তরুণদের আঘাত না করতে পারে। আমাদের তরুণরা শিক্ষা, সংস্কৃতি, খেলাধুলার মাধ্যমে আলোকিত মানুষ হিসেবে নিজেকে বিকশিত করবে।
ফুটবলার রিগেন আহমেদ বলেন, দীর্ঘদিন পর সুনামগঞ্জে ১ম বিভাগ ফুটবল লীগ হচ্ছে। আমরা আনন্দিত যে আমরা খেলতে পারবা। আমরা চাই খেলাটা মাঠে থাকুক।
টাইগার স্পোর্টিং ক্লাবের ম্যানেজার বেলায়েত হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন পর খেলা শুরু হয়েছে। আমাদের একটাই প্রত্যাশা এই খেলাটা যেন সবাই প্রেশ মনে খেলে। কোনো বিশৃঙ্খলা না হয়। আর এই খেলা অব্যাহত থাকুক।
জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি জুনেল আহমেদ রাজরান বলেন, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ১ম বিভাগ ফুটবল লীগ চালু করাটা সময়ের দাবি, সবার দাবি হয়ে গিয়েছিল। আমি নির্বাচিত হওয়ার পর পরই দ্বিতীয় বিভাগ খেলা অনুষ্ঠিত করেছি। সঠিক পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে খেলা চালানো কঠিন হয়। তবে খুঁজলে পৃষ্ঠপোষকও পাওয়া যায়। আমি খুঁজেছি, চেষ্টা করেছি তাই ১ম বিভাগ খেলাটি শুরু করতে পেরেছি।
উদ্বোধনী খেলায় টার্গেট স্পোর্টিং ক্লাবের বিরুদ্ধে ১-০ গোলে জয় পায় আবাহনী স্পোর্টিং ক্লাব। খেলায় পরিচালনা করেন বাফুফে রেফারি ইকবাল হোসেন। সহযোগী রেফারী হিসেবে ছিলেন সুহেল মিয়া, আহমেদুল হক, আতাউর রহমান।
লীগে ১০টি টিম অংশগ্রহণ করেছে। টিমগুলো হল- আবাহনী এফসি, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, শাহবাগ স্পোর্টিং ক্লাব, সামিউন এফসি, টার্গেট স্পোর্টিং ক্লাব, হিড়িক গ্রুপ স্পোর্টিং ক্লাব, রিয়েল বেঙ্গল ক্লাব, ফ্যান্টম এফসি, রাগীব রাবেয়া স্পোর্টিং ক্লাব ও জহিরুল এফসি।