৬টি গাছ জব্দ

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
দোয়ারাবাজারে সরকারি হালট থেকে গাছকাটার অভিযোগে উপজেলা বন বিভাগ কর্মকর্তা ৬টি গাছ জব্দ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মংলারগাঁও গ্রামে।
জানা যায়, গত বুধবার মৃত. নিরঞ্জন দাসের স্ত্রী সেতাঙ্গীনি দাস জোরপূর্বক সরকারি হালট থেকে ছোট বড় ৮ টি গাছ কাটেন। খবর পেয়ে উপজেলা বন বিভাগ কর্মকর্তা নিতিশ রঞ্জন দাস ছয়টি কাটা গাছ সেতাঙ্গিনি দাসের বাড়ি থেকে জব্দ করেন। তবে ৬ দিন অতিবাহিত হলেও বন বিভাগের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত লোকজনের বিরুদ্ধে কোন প্রকার ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।
এ ব্যাপারে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক রতন লাল দাস বলেন, সরকারি হালট এলাকাবাসীর চলাচলে সুবিধার্থে। এখন দেখা যায় হালটের জায়গা দখল করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছেন সেতাঙ্গিনি ও গ্রামের কয়েকজন লোক। তাদের ইন্ধনেই এসব করা হচ্ছে। এরমধ্যে গত বুধবার জোরপূর্বক ৮ টি গাছ কেটে নিয়েছেন সেতাঙ্গিনি দাস। এসব কাটা গাছ ফরেস্টার নিতিশ রঞ্জন দাস জব্ধ করে করেছেন। কিন্তু কি কারণে তিনি সরকারি জায়গার গাছ কাটার মামলা নিচ্ছেন না জানি না।
এ ব্যাপারে সেতাঙ্গিনি দাস বলেন, আগে হালট চিহ্নিত ছিল না। এখন ড্রেজার দিয়ে মাটি ভরাট করার ফলে হালট চিহ্নিত করা হয়েছে। আমি জোরপূর্বক গাছ কাটিনি, যে সকল গাছ আমি রোপন করেছিলাম সেই সকল গাছ কেটে নিয়েছি।
এ ব্যাপারে উপজেলা বন বিভাগের কর্মকর্তা নিতিশ রঞ্জন দাস বলেন, সরকারি হালটের গাছ কাটার খবর পেয়ে আমি ৬ পিস গাছ আটক করেছি। হালটের গাছ ছিল কি না খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।